বৃহস্পতিবার, ১৯-এপ্রিল ২০১৮, ০৩:৩৬ অপরাহ্ন
  • জেলা সংবাদ
  • »
  • নির্ধারিত সময়ে অফিসে না আসায় তিন দফতরে তালা

নির্ধারিত সময়ে অফিসে না আসায় তিন দফতরে তালা

sheershanews24.com

প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল, ২০১৮ ০৬:২০ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ, রাজশাহী : রাজশাহীর বাঘায় নির্ধারিত সময় অফিসে না আসায় তিন দফতরে তালা দেয়া হয়েছে। সোমবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে অবস্থিত সমবায়, খাদ্য নিয়ন্ত্রক ও পরিসংখ্যান অধিদফতরে এই তালা দেয়া হয়।
 
জানা গেছে, উপজেলা পরিষদের অধীন ১৭জন প্রধান কর্মকর্তার মধ্যে দু’জন প্রশাসনিক কর্মকর্তা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) ছাড়া অন্যরা থাকেন জেলা সদর কিংবা নিজ এলাকায়।
 
এর ফলে অনেক কর্মকর্তা নির্ধারিত সময় মেনে অফিসে আসতে পারেন না। আবার অনেকই জেলা কিংবা মাঠ পর্যায়ে মিটিং এর নামে অফিস ফাঁকি দেন বলে অভিযোগ রয়েছে।
 
সর্বশেষ সোমবার সকাল পৌনে ১০টায় বিভিন্ন দফর পর্যবেক্ষণে যান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা। এ সময় তিনটি দফতরের দরজা বন্ধ দেখতে পান তিনি। এগুলো হলো- সমবায়, খাদ্য নিয়ন্ত্রক ও পরিসংখ্যান অধিদফতর। এক পর্যায় নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে তার অফিসের কমচারীরা ওই তিন দফতরে তালা ঝুলিয়ে দেন। পরে অন্যান্য দফতর প্রধানদের সুপারিশে ঘটনার তিন ঘণ্টা পর তালা খুলে দেয়া হয়।
 
দুপুরে পরিসংখ্যান অধিদফতরের প্রধান কর্মকর্তা কামাল হায়দারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি অসুস্থ থাকার কারণে আধা ঘণ্টা দেরিতে এসেছেন বলে জানান। অপর একজন (সহকারী) সমবায় কর্মকর্তা আরিফুল ইসলাম জানান, তার স্যার জেলায় মিটিংয়ে আছেন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে খাদ্য নিয়ন্ত্রক (ফুড) বিভাগে কাউকে পাওয়া যায়নি।
 
উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) যোবায়ের হোসেন অভিযোগ করে বলেন, এ উপজেলায় কর্মরত বিভিন্ন দফতরের প্রায় ৫০-৬০জন কর্মকর্তা-কর্মচারী প্রতিদিন বাঘার বাইরে (শহর) থেকে বাসযোগে অফিস করছেন। এর মধ্যে প্রধান কর্মকর্তা রয়েছেন ১৫জন। যাদের কোনই জবাবদিহিতা নাই। ফলে অবহেলায় নষ্ট হচ্ছে আবাসিক কোয়ার্টার।
 
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা বলেন, এই পরিষদের অধীন চাকরি করতে হলে সরকারি নিয়ম-নীতি মেনে চলতে হবে। উপজেলার মাসিক সভায় এ কথা গুলো বার-বার বলা হচ্ছে । তার পরেও অফিসারদের গাফলতি রয়েছে। এ কারণে তাদের সতর্ক করতে সোমবার সকাল পৌনে ১০টায় তালা দেয়া হয়।

শীর্ষনিউজ/এসএসআই