শুক্রবার, ২৮-জুলাই ২০১৭, ০৬:৩৮ পূর্বাহ্ন
  • জেলা সংবাদ
  • »
  • চুয়াডাঙ্গায় গৃহবধূকে গাছে বেঁধে নির্যাতন: আটক ৮
| প্রকাশ : ১৭ জুলাই, ২০১৭ ০৬:৫৮ অপরাহ্ন

চুয়াডাঙ্গায় গৃহবধূকে গাছে বেঁধে নির্যাতন: আটক ৮

শীর্ষ নিউজ, চুয়াডাঙ্গা: চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার চিৎলা গ্রামে গরু চুরির অভিযোগে কাজলী খাতুন ওরফে হেয়া (৪২) নামের এক গৃহবধূকে গাছের সাথে বেধে নির্যাতন ও বাড়িঘর ভাঙচুর করেছে একই গ্রামের সিরাজুল ইসলামের লোকজন। সোমবার দুপুরে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে একই গ্রামের আহাদ আলী শেখের ছেলে আইয়ুব আলী (৫২), তার স্ত্রী মাহিরন নেছা (৪৫), ছেলে রাজু ওরফে উকিল (১৮), আবুলের ছেলে বাচ্চু (৩৫), সেকেন্দার আলীর ছেলে হাসান (২০), নয়েশ আলীর ছেলে সাহেব আলী (২০), বাবুলের ছেলে সেতু (২০), কাজিরুলের ছেলে ফয়সালকে (২০) আটক করেছে পুলিশ।
দামুড়হুদা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জিহাদ মো. ফকরুল আলম খান জানান, গত বুধবার দিবাগত রাতে উপজেলার চিৎলা গ্রামের সিরাজুল ইসলামের গোয়াল ঘর থেকে ২ টি হালের বলদ চুরি হয়ে যায়। বৃহস্পতিবার সকালে প্রতিবেশি তরল আলী গরু চুরি করেছে বলে অভিযোগ তুলে সিরাজুল ইসলামসহ তার লোকজন। অভিযোগ তোলার পরপরই তরল আলীর বাড়ীতে তল্লাশি চালিয়ে তাকে না পেয়ে বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাট করে তারা। তরল আলীর স্ত্রী কাজলি খাতুন ¯’ানীয় জুড়ানপুর বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে সিরাজুল ইসলামের লোকজন তাকে ধরে বাড়ির পাশের বেল গাছের সাথে বেধে ঘণ্টাব্যাপি নির্যাতন করে। পরে এলাকার লোকজন কাজলীকে উদ্ধার করে ¯’ানীয় ক্লিনিকে ভর্তি করে।
এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে আজ (সোমবার) সকালে চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার নিজাম উদ্দীন ও সহকারী পুলিশ সুপার কলিমুল্লাহ ঘটনা¯’ল পরিদর্শন করেন। এরপর পুলিশের সহযোগীতায় কাজলি খাতুন বাদী হয়ে ৯ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাদেরকে আটক করে। বিকেলে তাদেরকে চুয়াডাঙ্গা আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।
শীর্ষ নিউজ/প্রতিনিধি/এনএমএম