শুক্রবার, ২৮-জুলাই ২০১৭, ০৬:৪১ পূর্বাহ্ন
  • স্বাস্থ্য
  • »
  • সিরাজগঞ্জে জঠিল রোগে আক্রান্ত ২ শিশু ঢামেকে
| প্রকাশ : ১৬ জুলাই, ২০১৭ ১০:২২ অপরাহ্ন

সিরাজগঞ্জে জঠিল রোগে আক্রান্ত ২ শিশু ঢামেকে

শীর্ষ নিউজ, ঢাকা: সিরাজগঞ্জে জটিল রোগে আক্রান্ত দুই শিশুকে উন্নত চিকিৎসার জন্য আজ রোববার সন্ধ্যার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে। বর্তমানে তারা ঢামেকের পেডিয়েট্রিক সার্জারী বিভাগে ভর্তি আছে। শিশু দুটি হলো, জাহিদুল ইসলাম (৭)। সে সিরাজগঞ্জ উল্লাপারা উপজেলার পূর্ব দেলোয়া গ্রামের কৃষক আলিম উদ্দিনের ছেলে। অপর জন সলজ্ঞা উপজেলার দবিরগঞ্জ গ্রামের কৃষক নুরুল ইসলামের ছেলে সবুজ পরমানিক (১১)।
শিশু জাহিদুলের বাবা আলিম উদ্দিন জানান, ১ ভাই ২ বোনের মধ্যে সে মেঝো। জন্মের সময়ই জাহিদুলের জিব্বা স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক বড় আকৃতির হয়। এরপর তা একটু একটু করে বাড়তে থাকে। জেলা হাসপাতাল, নাটোর, বগুড়াসহ ঢাকা শিশু হাসপাতালেও তাকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছিলো। কিন্তু কোথাও কোন চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব হয়নি।
সবুজের বাবা নুরুল ইসলাম জানান, সবুজেরও জন্ম থেকেই পেটে অস্বাভাবিক টিউমারের মত দেখা যায়। যা পরবর্তিতে আস্তেআস্তে বড় হতে থাকে। বিভিন্ন হাসপাতালে নিয়ে গেলেও তার এই অস্বাভাবিক অংশ কেটে ফেলা বা অপারেশন করা যায়নি।
তারা জানান, স্থানীয় সাংবাদিক মামুন বিশ্বাস আমাদের খবর পেয়ে প্রথমে জেলা সিভিল সার্জনের কাছে নিয়ে যায়। এরপর তাঁরা আমাদেরকে ঢাকা মেডিকেলে পাঠিয়ে দিয়েছেন।
মুঠোফোনে মামুন বিশ্বাসের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ফেসবুকে আমাদের এই রকম অস্বাভাবিক ও জটিল রোগীদের সহায়তার জন্য একটি গ্রুপ রয়েছে। কিছুদিন আগে আমরা উল্লাপারা উপজেলার জাহিদুল ও সলজ্ঞা উপজেলার সবুজের খবর পাই। এরপর ফেসবুকে তাদের জটিল রোগের কথা প্রচার করা হলে স্বাস্থ্য সচিব সিরাজুল ইসলামের নজরে পরে। তখন স্বাস্থ্য সচিব সিরাজগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জনকে শিশু দুটিকে ঢাকা মেডিকোলে পাঠানোর ব্যবস্থা করতে বলেন। এবং শিশু দুটির চিকিৎসার যাবতীয় খরচ বহণ স্বাস্থ্য সচিব নিজে করবেন বলে জানান। পরে আজকে শিশু দুটিকে ঢাকা মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে বলে জানান মামুন বিশ্বাস।
ঢামেক হাসপাতালের ইমার্জেন্সি মেডিকেল অফিসার ডা. ঝুমা জানান, শিশু দুটির একজনের জিব্বা অস্বাভাবিক ও অন্য জনের পেটে বড় টিউমারের মত দেখা যাচ্ছে। দু'জনেরই এটি জন্মগত সমস্যা বলে জানতে পেরেছি। এজন্য তাদেরকে পেডিয়েট্রিক সার্জারী বিভাগে (ওয়ার্ড ২০৫) ভর্তি রাখা হয়েছে।
শীর্ষ নিউজ/হায়দার/এনএমএম