বৃহস্পতিবার, ১৪-ডিসেম্বর ২০১৭, ০৪:১৪ অপরাহ্ন

মোদিকে ‘নিচ’ বলায় দিল্লিতে তোলপাড়

sheershanews24.com

প্রকাশ : ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০৮:৫৬ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ ডেস্ক: ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ‘নিচ আদমি’ বলায়  খেসারত দিতে হচ্ছে কংগ্রেস নেতা মণিশংকর আইয়ারকে। রাহুল গান্ধী তাঁকে ক্ষমা চেয়ে নিতে বললেন। গুজরাটে বিধানসভা নির্বাচনে একে অপরকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করেই চলেছে রাজনৈতিক নেতারা।
মণিশংকর আইয়ার মোদিকে উদ্দেশ্য করে বৃহস্পতিবার বলে বসেন, ‘উনি খুব নিচু দরের মানুষ, তাতে কোনও সন্দেহ নেই। আর এই সুযোগে তিনি কি নোংরা রাজনীতি করতে অভ্যন্ত হয়ে পড়েছেন?’ তাঁর এই মন্তব্যের সদ্ব্যবহার করতে ছাড়েননি মোদি। গুজরাটে প্রথম দফার নির্বাচনের আগে শেষ দিন প্রচারে মোদি বলেন, ‘তাঁরা আমাকে নিচ বলছেন। কিন্তু আমার কাজ খুব উঁচু দরের।’ এরপরেই বিষয়টাকে গুজরাটের অস্মিতার সঙ্গে জুড়ে দিয়ে বলেন, ‘গুজরাটের মানুষ এর জবাব দেবেন। হ্যাঁ, আমি সমাজের দরিদ্র অংশের প্রতিনিধি। জীবনের প্রতিটা মূহুর্ত আমি গরিব, দলিত, আদিবাসী এবং ওবিসি সম্প্রদায়ের উন্নয়নে কাজে লাগিয়েছি। ওঁরা ওভাবে কথা বলুন, আমরা আমাদের কাজ করে যাই।’
বিষয়টি হাতের বাইরে চলে যাচ্ছে দেখে মাঠে নামেন রাহুল গান্ধী। তাঁর টুইট, ‘যে ভাষায় মণিশংকর আইয়ার প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে মন্তব্য করেছেন, আমি তার প্রশংসা করতে পারছি না। কংগ্রেস এবং আমি আশা করি তিনি যা বলেছেন তার জন্য ক্ষমা চাইবেন।’
মণিশংকর আইয়ার বলেন, ‘আমার খারাপ ইংরাজির জন্যই ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। ‘নিচ’ বলতে আমি নিচুস্তরের রাজনীতি বোঝাতে চেয়েছি। তাঁর জন্ম নিয়ে কিছু বলতে চাইনি। কেউ যদি অন্য মানে করেন, তবে আমি ক্ষমাপ্রার্থী।’
২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনের আগেও বিজেপি’র হাতে লোপ্পা ক্যাচ তুলে দিয়েছিলেন মণিশংকর। সেবার তিনি বলেছিলেন, ‘নরেন্দ্র মোদি কখনও দেশের প্রধানমন্ত্রী হতে পারবেন না। কিন্তু তিনি চা বিক্রি করতে পারেন। আমরা তাঁকে জায়গা করে দেব।’ সেই মন্তব্য ব্যুমেরাং হয়ে যায় কংগ্রেসের। সারাদেশে বিজেপি’র সমাবেশে চা স্টল খোলেন কর্মীরা। আর মোদিও প্রত্যেক জনসভায় তাঁর দরিদ্র অতীত নিয়ে ভাবাবেগে সুরসুরি দেন।
শীর্ষনিউজ২৪ ডটকম/এনএমএম