শুক্রবার, ২৮-জুলাই ২০১৭, ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন
  • আন্তর্জাতিক
  • »
  • চীন-রাশিয়াকে চাপে রাখতে দ্রুত গতির ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষায় যুক্তরাষ্ট্র!
| প্রকাশ : ১৭ জুলাই, ২০১৭ ০৮:৪১ অপরাহ্ন

চীন-রাশিয়াকে চাপে রাখতে দ্রুত গতির ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষায় যুক্তরাষ্ট্র!

শীর্ষনিউজ ডেস্ক: সেকেন্ডে এক মাইল পর্যন্ত দ্রুত গতির এক হাইপারসোনিক এয়ারক্রাফ্ট মিসাইল পরীক্ষা চালাছে যুক্তরাষ্ট্র। আমেরিকা এবং অস্ট্রেলিয়া যৌথভাবে এই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালাতে যাচ্ছে বলে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের দাবি।

মার্কিন বিমান বাহিনীর পক্ষ থেকে জেনারেল জন হেটন জানান, চীন এবং রাশিয়ার হাইপারসোনিক মিসাইল উত্তরোত্তর চিন্তা বাড়িয়ে তুলছে। তাই চীন-রাশিয়ার কথা মাথায় রেখে নিরাপত্তা ব্যবস্থার দিকটি আরও শক্তিশালী করে তুলতে হবে, পাশাপাশি এই হাইপারসোনিককে আরও উন্নত করে তুলতে হবে।

সে চিন্তা থেকেই যুক্তরাষ্ট্র দ্রুত গতির এ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করতে যাচ্ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

জানা গেছে, এ হাইপারসোনিক মিসাইলের গতি শব্দের গতিবেগের থেকে ৫ গুণ বেশি। এর গতি প্রতি ঘণ্টায় ৬ হাজার ২০০ থেকে ১২ হাজার ৩৯১কিলোমিটারের মধ্যে।

X-51A ওয়েবরাইডার নামের এই মিসাইলকে এমনভাবে ডিজাইন করা হয়েছে যে এর গতি বেড়ে ১২ হাজার ৩৯১কিলোমিটার হয়েছে প্রতি ঘণ্টায়।

হাইপারসোনিক ইন্টারন্যাশনাল ফ্লাইট রিসার্চ এক্সপেরিমেন্টশন নাম রাখা হয়েছে এই প্রোগ্রামের। দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার বুমেরা পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে এখন পর্যন্ত হাইপারসোনিকের সফল পরীক্ষার কথাই জানা গেছে। গত ১২ জুলাই এই পরীক্ষার বিষয়টি সম্পূর্ণ হয়েছে।  

অস্ট্রেলিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মরিস পেন এই বিষয়ে জানান, অস্ট্রেলিয়ার BAE সিস্টেমের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এই হাইপারসোনিকের পরীক্ষা সফল হয়েছে। পাশাপাশি এও জানানো হয়েছে যে, এখন পর্যন্ত যতগুলো পরীক্ষা হয়েছে তার মধ্যে এই হাইপারসোনিকের পরীক্ষা সবথেকে জটিল ছিল।

বহু ব্যালিস্টিক মিসাইল এই হাইপারসোনিকের থেকেও বেশি গতিবেগের হয়ে থাকে। কিন্তু সেসব ব্যালিস্টিক মিসাইলের গতিপথ উপগ্রহের মাধ্যমে নজরবন্দি করা যায়। আমেরিকার কাছে এমন ধরনের ব্যবস্থা রয়েছে যা এই সব মিসাইলকে মাঝপথেই ধ্বংস করে দিতে পারে। তাই এর থেকে হাইপারসোনিক মিসাইল বেশিই কার্যকরী, কারণ এদের ট্র্যাক করা যায় না। শুধু তাই নয়, এই সব হাইপারসোনিক মিসাইল মাঝপথ থেকে তার গতিপথও পরিবর্তন করতে সক্ষম।

শীর্ষনিউজ/এইচএস