সোমবার, ২৫-সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১১:০৭ অপরাহ্ন

রাজধানীতে কোরবানির মাংসের হাট

প্রকাশ : ০২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০৬:১০ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ, ঢাকা: রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে বসেছে বিভিন্ন বাসা বাড়ি সংগ্রহ করা মাংসের ভাসমান দোকান। মাংসের দোকানের এমন দুটি স্থান দেখা গেছে উত্তরার মাসকট প্লাজার সামনে এবং আজমপুর ব্রিজের পাশে। তবে সাধারণ মাংসের দোকানের চেয়ে এর পার্থক্য হলো এখানে যে মাংস বিক্রি করা হচ্ছে সেগুলো বিভিন্ন বাসাবাড়ি থেকে সংগ্রহ করা কোরবানির মাংস।

ইসলামের নিয়ম অনুয়াযী, অবস্থাসম্পন্ন মুসলমানরা পশু কোরবানি দেওয়ার পর তার একটি অংশ গরিব অসহায় মানুষের মধ্যে বিতরণ করেন। এই মাংস সংগ্রহের পর নিজের প্রয়োজন মিটিয়ে অনেকেই আবার তা বিক্রি করে দেন বাজারমূল্যের চেয়ে কম দামে।

শুধু তাই নয়, রাজধানীর বিভিন্ন বাসাবাড়িতে গরু জবাই ও মাংস প্রস্তুতের বিভিন্ন কাজ করা কসাইরাও বখশিশ হিসেবে পাওয়া উদ্বৃত্ত মাংস বিক্রি করে দেন। আর এসব অস্থায়ী হাটে চলে কোরবানির এই মাংস বেচাকেনা।

মাসকট প্লাজার সামনের মাংসের হাটে বিক্রেতা কম, কিন্তু ক্রেতা বেশি দেখা গেল। কোনো ওজন নয়, স্রেফ চোখের আন্দাজে একেক ভাগ করে মাংস সাজিয়ে রাখা হয়েছে। এই এক ভাগ মাংস বিক্রি হচ্ছে ৪০০ টাকায়। প্রতিটি ভাগে প্রায় দেড় কেজির মতো মাংস হতে পারে বলে বিক্রেতাদের ধারণা।

আজমপুরেরও রয়েছে ক্রেতা-বিক্রেতাদের সমান অংশগ্রহণ। এখানে ৩৫০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে কোরবানির মাংস। দেখা গেল, বিভিন্ন স্থান থেকে মাংস সংগ্রহ করে যাঁরা এই হাটে আসছেন, ক্রেতারা তাঁদের ঘিরে মাংস দেখছেন, দরদাম করছেন। সঠিক ওজন না জেনেই পরিমাণের ওপর নির্ভর করে এখানে মাংসের দাম নির্ধারণ করা হচ্ছে।

এই হাটের ক্রেতারা মূলত সাধারণ মানুষ। তবে আশপাশের বেশ কয়েকটি  রেস্টুরেন্টকেও মাংস কিনতে দেখা গেল।

শীর্ষনিউজ/এনএমএম